সড়কে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন

চট্টগ্রামে গত ৭ই মে মারা যাওয়া
ইমন দাশের (২৫) বন্ধু ও অভিবাভকরা। এসময় তারা অবিলম্বে সড়কে হত্যা বন্ধে কঠোর আইন করার দাবি জানান।

সোমবার (১৬ মে) সকাল ১১ প্রেসক্লাব চত্বরে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে গত ৭ই মে সন্ধ্যায় নগরের চান্দগাঁও থানার স্বাধীনতা কমপ্লেক্সের সামনে বাস ও লেগুনার সংঘর্ষে মৃত্যু হয় মেধাবি ছাত্র ইমন।জানা যায় চীন থেকে দেশে ফিরে অনলাইনে ইলেক্ট্রনিকস অ্যান্ড ইলেকট্রিকাল ইঞ্জিনিয়ার বিভাগের শেষ বর্ষের ইমন। ইমনের অকাল মৃত্যুতে তার পরিবারের স্বপ্ন চিরতরে ধ্বংস হয়ে গেল।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলো বাংলাদেশ পরিবেশ ফোরামের সভাপতি ইদ্রিস আলী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলীউর রহমান, বাংলাদেশ বৈদিক পরিষদের সাধারন সম্পাদক রাজীব দে, বাংলাদেশ সহকারি কলেক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ডা. মোজাহেরুল আলম, সহকারি কলেক শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক প্রদীপ কুমার দাশ, ডা. ফজলুল হাফেজ ডিগ্রি কলেজের সহকারি অধ্যাপক মনোজ কুমার দেব, কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন, জহুরলাল হাজারী, রুমকি সেনগুপ্তসহ নিহতের পরিবারের সদস্য ও নিহত ইমনের বন্ধু মো. শহীদ, বিজয় সেনগুপ্ত, সগরময় অচার্য্য, অর্পিতা দাশ, অন্তু ধরসহ অনন্যারা।

এসময় বক্তারা বলেন, সড়কে মৃত্যু হত্যার ই অংশ। যারা রাস্তায় দ্রুত গতিতে গাড়ি চালায় প্রশাসনের উচিত তাদের শাস্তির ব্যবস্থা করা। আজ ইমনের মতো একটা ছেলে প্রান হারালো। কাল আরো একজনের হারাবে। এভাবে চলতে থাকলে প্রতিনিয়ত আমরা স্বজন হারাবো, কারো বন্ধু হারেবে। হারানোর বেদোনা তারাই বুঝে যাদের হারাূ। তাই প্রশাসনের কাছে এইসব লাইন্সেন বিহীন ডাইভার ও গাড়িগুলো আইনের আওতায় আনা হোক।

 spankbang