চট্টগ্রামের শত স্পটে লাখো মাস্ক বিতরণ করছে ডবলমুরিং থানা

চট্টগ্রাম নগরীর ১০০টি স্পটে একলাখ মাস্ক বিতরণ করছে ডবলমুরিং থানা পুলিশ। জনগণকে মাস্ক পরতে উদ্বুদ্ধকরণে বাংলাদেশ পুলিশের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির আওতায় এসব মাস্ক পর্যায়ক্রমে বিতরণ করা হবে।

ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, ‌‘করোনা প্রতিরোধে সবচেয়ে সহজ সমাধান মাস্ক। মানুষ এবং করোনার মাঝে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে এই মাস্ক। তাই মাস্ক পরিধান উদ্বুদ্ধ করতে আমরা ১০০টি স্পটে একলাখ মাস্ক বিলি করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি।’

এদিকে জনগণকে মাস্ক পরতে উদ্বুদ্ধকরণে বাংলাদেশ পুলিশের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির আওতায় আজ (রবিবার) সকালে নগরীর বিভিন্নস্থানে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণের কর্মসূচি উদ্বোধন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (পশ্চিম জোন) উপ-কমিশনার আব্দুল ওয়ারিশ, ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন।এরপর অফিসার এবং স্বেচ্ছাসেবীদের সমন্বয়ে গঠিত টিমগুলো ১০০ স্পটে গিয়ে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ শুরু করে। একইসঙ্গে উপ-কমিশনার আব্দুল ওয়ারিশ ১০টি স্পটে গিয়ে মাস্ক বিতরণ করেন। তিনি বলেন, ‌‘করোনা থেকে বাঁচতে মাস্কের বিকল্প নেই। মাস্ক পরতেই হবে। তাই জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে আমাদের এই কর্মসূচি। এ ব্যাপারে আমরা জনগণেরও সহযোগিতা চাই।’ এ সময় স্বেচ্ছাসেবকদের হাতে মাস্ক পরিধানে সচেতনতামূলক বিভিন্ন শ্লোগান সম্বলিত বর্ণিল প্ল্যাকার্ড, ফেস্টুন শোভা পাচ্ছিল।

মাস্ক পরিধানে সচেতনতামূলক এই কর্মসূচি মাসব্যাপী চলবে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

 spankbang