প্রবর্তক ইসকন মন্দিরের সাধু সন্ন্যাসীদের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ

 

ইসকন প্রবর্তক শ্রীকৃষ্ণ মন্দিরে সন্ত্রাসী হামলা, ভাংচুর ও সাধুসন্ন্যাসীদের মিথ্যা মামলায় হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে চট্টগ্রামের সর্বস্তরের সনাতনী জনগণ। শুক্রবার (১৯ মার্চ) বিকাল ৩টায় প্রবর্তক শ্রীকৃষ্ণ মন্দির চত্বরে আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির সম্পাদক শ্রীপাদ চিন্ময়কৃষ্ণ দাস ব্রহ্মচারীর সভাপতিত্বে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় । সমাবেশে চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় শতাধিক সনাতনী সমাজের বিভিন্ন স্তরের সংগঠন অংশগ্রহণ করে। এছাড়া সমাবেশ থেকে সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার হবিপুর ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামে হিন্দু পাড়ায় হামলা ও লুটপাটের ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনারও আহ্বান জানান সনাতনী নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ইসকন মন্দিরে হামলা মানে হচ্ছে সমগ্র সনাতন সম্প্রদায়ের উপর হামলা, ধর্মের উপর অত্যাচার। এ ধরনের সন্ত্রাসী হামলা কোনোভাবেই সনাতন সমাজ বরদাস্ত করবেনা। এ ধরনের সন্ত্রাসী প্রবর্তক সংঘের মত পবিত্র ভূমিতে থাকতে পারেনা। তাই প্রবর্তক সংঘকে রক্ষা এবং এর সম্পদগুলোকে যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণের পদক্ষেপ নিতে হবে। সমাবেশে বক্তারা সম্মিলিতভাবে ৪ টি জোর দাবি জানান। দাবিগুলো হলো (১) ইসকন প্রবর্তক মন্দিরে ও সাধুদের উপর আক্রমনকারী সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা এবং সাধুসন্ন্যাসীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করা (২) ইসকনের মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী বরাদ্দকৃত জায়গাকে অবিলম্বে অবমুক্তি ঘোষণা করা, (৩) প্রবর্তক সংঘ পরিচালনা কমিটিতে সংঘের নিয়মাবলী অনুযায়ী সাধুসন্ন্যাসীদের ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিত্বকারী ব্যক্তিদের অন্তর্ভুক্ত করা, (৪) প্রবর্তক সংঘের বিশাল সম্পত্তি যাতে কোনক্রমেই বাণিজ্যিকভাবে বিক্রি না করে সনাতনী সমাজের স্বার্থে ও কল্যাণে ব্যবহার করা।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির সম্পাদক শ্রীপাদ চিন্ময়কৃষ্ণ দাস ব্রহ্মচারী, ইসকন প্রবর্তক শ্রীকৃষ্ণ মন্দিরের অধ্যক্ষ শ্রীপাদ লীলারাজ গৌর দাস ব্রহ্মচারী, শ্রীপাদ দারুব্রহ্ম জগন্নাথ দাস ব্রহ্মচারী, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি জনাব রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি জনাব নাজিম উদ্দিন শ্যামল, দিব্যনিমাই দাস ব্রহ্মচারী, স্বতন্ত্র গৌরাঙ্গ দাস ব্রহ্মচারী, ঢাকা রমনা কালি মন্দিরের উপদেষ্টা মিলন শর্মা, অপূর্ব মনোহর দাস ব্রহ্মচারী,রুপেশ^র গৌরাঙ্গ দাস ব্রহ্মচারী, জাগো হিন্দু পরিষদ চট্টগ্রামের অমিত পারিয়াল,বিশ^ সনাতন ঐক্যের প্রতিষ্ঠাতা সাংবাদিক বিপ্লব পার্থ, জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সুমন পাল, বাংলাদেশ দেবোত্তর সম্পত্তি রক্ষা কমিটির সম্পাদক জহরলাল চক্রবর্তী,হিন্দু ছাত্র মহাজোট কুমিল্লা জেলার সভাপতি হৃদয় চন্দ্র শীল, চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের সা. সম্পাদক সুভাষ মল্লিক, হিন্দু জাগরণ সংঘের প্রতিষ্ঠাতা কপিরঞ্জন তালুকদার, শীতলপুর শ্রী চৈতন্য সংঘের কর্মকর্তা রানা দাশ, রাউজান গৌরনিতাই মন্দিরের সভাপতি উত্তমানন্দ নিতাই দাস, গীতা স্কুল পরিচালনা পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক তুষার দাশ, সনাতন সংঘের রিপন দাশ, জাগো হিন্দু দেবি পরিষদের তন্নী ধর, নিতাই সংঘের জিষু ঘোষ, গৌর পূর্ণিমা উদযাপন পরিষদের সম্পাদক সুমন চৌধুরী, চট্টেশ^রী কালী মন্দিরের বিজয় চক্রবর্তী, জালালাবাদ পূজা উদযাপন পরিষদের নেতা সৌরভ রায়, পটিয়া রাধামদন গোপাল নামহট্টের তপো নরোত্তম দাস, বাসুদেব মুকুন্দ দত্ত ধামের অচ্যুত গৌরহরি দাস, রাঙ্গুনীয়া কৃষ্ণ বলরাম নামহট্টের অকিঞ্চন পুন্ডরিক দাস, মাঝিরঘাট শ্রী রাধা শ্যাম সুন্দর নামহট্টের অমৃতময় গৌর দাস প্রমুখ।–—-
সমাবেশে অংশগ্রহণ করেন- বাংলাদেশ দেবোত্তর সম্পত্তি রক্ষা, পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণ জাতীয় কমিটি, ইসকন প্রবর্তক শ্রীকৃষ্ণ মন্দির, মঠ মন্দির সেবায়েত পুরোহিত কল্যাণ সংস্থা, তুলসিধাম, নন্দনকানন, জাতীয় হিন্দু মহাজোট, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটি, শংকর মঠ ও মিশন, সীতাকু- শারদাঞ্জলী ফোরাম,শ্রীশ্রী রাধাবিনোদ কেন্দ্রীয় ও মাতৃ পরিষদ, ঐক্যবদ্ধ সনাতনী সমাজ, জাগো হিন্দু পরিষদ, পূজা উদযাপন পরিষদ,বায়েজিদ থানা, বোর্ড অব ট্রাষ্ট,শ্রীশ্রী কৈবল্যধাম, শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী মন্দির ট্রাষ্টি বোর্ড ও পরিচালনা কমিটি, শ্রীশ্রী দয়াময়ী শিব ও কালীবাড়ি, পশ্চিম ষোলশহর,হিন্দুপাড়া, চকবাজার বন্ধুমহল সংঘ, বহদ্দারহাট হিন্দু জাগরণ সংঘ, সনাতন সংঘ, বুড়ীশ্চর মৈত্রি সংঘ, শ্রীশ্রী রাধাকৃষ্ণ মন্দির পূর্ব মাদার বাড়ি সেবক কলোনী, কাত্যায়ণী ধাম, নালাপাড়া, সদরঘাট কালি বাড়ি, সদরঘাট নারায়ণ মন্দির,চট্টগ্রাম, চট্টেশ^রী কালি মন্দির, চট্টেশ^রী রোড, বলুয়ারদীঘি শ্মশানকালি বাড়ি, সার্বজনীন মঙ্গলময়ী কালি বাড়ি লোকনাথ মন্দির, ব্রজধাম পূজা মন্দির. শ্রীশ্রী রাধামাধব আখড়া,কাতালগঞ্জ, জগন্নাথ পূজা উদযাপন পরিষদ, রহমতগঞ্জ, তুলসীধাম, নন্দনকানন, শীতলপুর চৈতন্য সংঘ, বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ছাত্র মহাজোট,পটিয়া, ভ্রাম্যমান গীতা প্রচার সংঘ, চাঁদগাও , সৎসঙ্গ আশ্রম , দেওয়ানজী পুকুরপাড়, শ্রীশ্রী রাধাকৃষ্ণ মন্দির, পোড়াভিটা,খাতুনগঞ্জ, বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু যুব মহাজোট,চট্টগ্রাম মহানগর, ইসকন বোয়ালখালী প্রচার কেন্দ্র, ইসকন শ্রী শ্যামসুন্দর প্রচার কেন্দ্র, কর্ণফুলী থানা, রাধাশ্যামসুন্দর নামহট্ট,মাঝিরঘাট, শ্রীকৃষ্ণ নামহট্ট সংঘ,বালুচড়া, রাধামাধব নামহট্ট, গিরিগোবর্ধন নামহট্ট, দক্ষিণ কাট্টলী, শ্রীশ্রী গৌর নিতাই নামহট্ট, খাতুনগঞ্জ, বিশ^ সনাতন ঐক্য, গীতা স্কুল পরিচালনা পরিষদ,চট্টগ্রাম মহানগর, বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ছাত্র মহাজোট, চট্টগ্রামসহ আরো অনেক সংগঠন ।
মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

 spankbang