অবিবাহিত জীবনই বেশি সুখের

 অবিবাহিত জীবনই বেশি সুখের?
অবিবাহিত ও নিঃসঙ্গ থাকলেই নাকি মানুষ ‘সবচেয়ে বেশি অর্থবহ জীবনযাপন’ করতে পারে। বিয়ে করলেই জীবন সুখের হয়—এমন ধারণা এখন প্রায় পুরাণে রূপ নিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের একজন মনোবিজ্ঞানী এমনটিই দাবি করেছেন।
ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটির (সান্টা বারবারা) ওই গবেষক বেলা ডিপাওলো বলেন, আজকাল অবিবাহিত একা মানুষের সংখ্যা বাড়ছে। কারণ, তাঁরা ইচ্ছে করেই এমন জীবন বেছে নিচ্ছেন। নিঃসঙ্গ জীবনই সবচেয়ে বেশি অকৃত্রিম—এই সত্যিটা তাঁরা জানেন।
ডেনভারে অনুষ্ঠিত আমেরিকান সাইকোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক সম্মেলনে অধ্যাপক ডিপাওলো বলেন, বিয়ে করলেই মানুষ বেশি দিন বাঁচে, বেশি সুখী হয় আর অন্যদের চেয়ে সুস্থ জীবন যাপন করতে পারে বলে ধারণা প্রচলিত আছে। এটা কতটুকু সত্যি, তা যাচাইয়ের লক্ষ্যে তিনি গত ৩০ বছরে প্রকাশিত আট শর বেশি গবেষণাপত্র বিশ্লেষণ করেন। এতে দেখা যায়, একাকী জীবনযাপনকারী অবিবাহিত ব্যক্তিরা বিবাহিত ব্যক্তিদের তুলনায় নিজেকে ভালো চিনতে পারেন। আর ব্যক্তি হিসেবে তাঁদের অব্যাহত উন্নতির সম্ভাবনাও বেশি থাকে। আবার তাঁরা অর্থবহ অনেক কাজ করতে পারেন, যা কিনা বিবাহিত মানুষদের পক্ষে সম্ভব হয় না। অবিবাহিত নিঃসঙ্গ মানুষেরা বেশি আত্মনির্ভর, আর তাঁদের মধ্যে নেতিবাচক আবেগ কম থাকে। বিবাহিত মানুষের ক্ষেত্রে ব্যাপারগুলো ঠিক বিপরীত হয়ে থাকে।
অধ্যাপক ডিপাওলো নিজেও অবিবাহিত। তিনি বলেন, নিঃসঙ্গ জীবনযাপনের আপেক্ষিক জনপ্রিয়তার স্বীকৃতি পাওয়াটা সব সময়ই বিরল ঘটনা। কিন্তু নিঃসঙ্গ অবিবাহিত মানুষেরা মা-বাবা, ভাই-বোন, বন্ধু-বান্ধব, প্রতিবেশী আর সহকর্মীদের বেশি সময় দিতে পারে। বিয়ে করার পর মানুষ সাধারণত আবদ্ধ হয়ে পড়ে। তাই এখন সময় এসেছে একাকী জীবনের সত্যিকারের রূপ চেনার।সুত্রঃপ্রথম আলো

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

 spankbang